জেনে নিন- উচ্চতা অনুযায়ী একজন মানুষের আদর্শ ওজন কত হওয়া উচিত?

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
  • 16
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
    16
    Shares

উচ্চতা অনুযায়ী আদর্শ ওজন

একজন মানুষের তাঁর উচ্চতা অনুযায়ী আদর্শ ওজন কতো থাকা উচিত? চলুন তা আজকে আমরা জেনে নিই। চিকিৎসা শাস্ত্র মতে কাউকে রোগা বা মোটা বলা হয়ে বডি মাস ইনডেক্স বা বিএমআই নির্ণয় করার মাধ্যমে । প্রতিটি মানুষেরই উচ্চতার সাপেক্ষে আছে একটি আদর্শ ওজন।

ওজন যদি আদর্শ মাত্রায় থাকে- তাহলে মানুষটি সুস্থ দেহের অধিকারী হয়। এবং এর ফলে রোগ বালাইও হবার সম্ভাবনা কম।আদর্শ ওজন নির্ণয়ের ক্ষেত্রে একজন ব্যক্তির ওজন/কিলোগ্রামে মাপা হয় এবং তার উচ্চতা মিটারে মাপা হয়। এরপর ওজনকে উচ্চতার বর্গফল দিয়ে ভাগ করা হয় এবং এই ভাগফলকেই বলে বিএমআই। যদি বিএমআই ১৮ থেকে ২৪-এর মধ্যে হয় তাহলে তা স্বাভাবিক।

অপরদিকে ২৫ থেকে ৩০-এর মধ্যে হলে স্বাস্থ্যবান বা অল্প মোটা, ৩০ থেকে ৩৫-এর মধ্যে হলে এগুলো আবার বেশি মোটা এর মধ্যে পড়ে। কিন্তু এটাই যদি ৩৫-এর ওপরে হয় তাহলে তা অত্যন্ত মোটা ও অসুস্থ পর্যায়ের মধ্যে পড়ে।

বেশি ওজন কিংবা একেবারেই কম ওজন কারোই কাম্য নয়। আবার দেখা যায় আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন বেঁটে কিন্তু অতিরিক্ত মোটা, আবার অনেকে খুব লম্বা কিন্তু এমন হালকা যেন মনে হয় বাতাসেই পড়ে যাবে। আর এরকম অবস্থা মানেই উচ্চতা অনুযায়ী তাঁদের ওজন ঠিক নেই আদর্শ মাপ অনুযায়ী- আপনার ওজন বেশি না কম, নাকি তা ঠিকই আছে তা বুঝতে দেখে নিন উচ্চতা অনুযায়ী ওজন কতো হলে হতা
আদর্শ মাপের মধ্যে পড়বে-

== ) ৪ফুট ৭ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৩৯-৪৯ [পুরুষের জন্য] == ৩৬-৪৬ [নারীর জন্য]।

==) ৪ফুট ৮ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৪১-৫০ [পুরুষের জন্য] == ৩৮-৪৮ [নারীর জন্য]।

==) ৪ফুট ৯ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৪২-৫২ [পুরুষের জন্য] == ৩৯–৫০ [নারীর জন্য]।

==) ৪ফুট ১০ উচ্চতা —— ৪৪-৫৪ [পুরুষের জন্য] == ৪১–৫২ [নারীর জন্য]।

==) ৪ফুট ১১ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৪৫-৫৬ [পুরুষের জন্য] == ৪২-৫৩ [নারীর জন্য]।

==) ৫ফিট উচ্চতা উচ্চতা —— ৪৭-৫৮ [পুরুষের জন্য] == ৪৩-৫৫ [নারীর জন্য]।

==) ৫ফুট ১ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৪৮-৬০ [পুরুষের জন্য] == ৪৫-৫৭ [নারীর জন্য]।

==) ৫ফুট ২ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৫০-৬২ [পুরুষের জন্য] == ৪৬-৫৯ [নারীর জন্য]।

==) ৫ফুট ৩ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৫১-৬৪ [পুরুষের জন্য] == ৪৮-৬১ [নারীর জন্য]।

==) ৫ফুট ৪ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৫৩-৬৬ [পুরুষের জন্য] == ৪৯-৬৩ [নারীর জন্য]।

==) ৫ফুট ৫ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৫৫-৬৮ [পুরুষের জন্য] == ৫১-৬৫ [নারীর জন্য]।

==) ৫ফুট ৬ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৫৬-৭০ [পুরুষের জন্য] == ৫৩-৬৭ [নারীর জন্য]।

==) ৫ফুট ৭ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৫৮-৭২ [পুরুষের জন্য] == ৫৪-৬৯ [নারীর জন্য]।

==) ৫ফুট ৮ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৬০-৭৪ [পুরুষের জন্য] == ৫৬-৭১ [নারীর জন্য]।

==) ৫ফুট ৯ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৬২-৭৬ [পুরুষের জন্য] == ৫৭-৭১ [নারীর জন্য]।

==) ৫ফুট ১০ উচ্চতা —— ৬৪-৭৯ [পুরুষের জন্য] == ৫৯-৭৫ [নারীর জন্য]।

==) ৫ফুট ১১ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৬৫-৮১ [পুরুষের জন্য] == ৬১-৭৭ [নারীর জন্য]।

==) ৬ ফিট উচ্চতা —— ৬৭-৮৩ [পুরুষের জন্য] == ৬৩-৮০ [নারীর জন্য]।

==) ৬ফুট ১ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৬৯-৮৬ [পুরুষের জন্য] == ৬৫-৮২ [নারীর জন্য]।

==) ৬ফুট ২ ইঞ্চি উচ্চতা —— ৭১-৮৮ [পুরুষের জন্য] == ৬৭-৮৪ [নারীর জন্য]।

অতিরিক্ত রুগ্ন হলে দেখতে খারাপ তো লাগেই, সাথে চেহারায়ও দ্রুত বলিরেখা পড়ে। অতিরিক্ত রুগ্ন মানুষ আসলে অপুষ্টির শিকার।

এরফলে পুষ্টিজনিত নানাবিধ রোগ, যেমন- শারীরিক দুর্বলতা, রক্ত শুন্যতাসহ- নানান রকম চর্মরোগ ইত্যাদি হওয়ার প্রবল সম্ভাবন  থাকে। এছাড়াও অপুষ্টির শিকার হলে দাঁত নষ্ট হয়ে যাওয়া, চুল পড়ে যাওয়া, হাড় খয়ে যাওয়াসহ নানা রকম রোগ দেখা দিতে পারে।

ঠিক উল্টো হচ্ছে অতিরিক্ত মোটা। শরীরে অতিরিক্ত চর্বি জমার ফলে মানুষ মোটা হয়। চর্বিকোষ আয়তনে বাড়ে তখন শরীরে চর্বি জমে।  পেটে, নিতম্বে, কোমরে ফ্যাট সেল বেশি থাকে। দেহে চর্বি জমে অতিরিক্ত খাওয়ার জন্য, আবার যে পরিমাণ খাওয়া হচ্ছে সে পরিমাণ ক্ষয় বা ক্যালরি খরচ হচ্ছে না এ কারণেও দেহে মেদ জমতে পারে।

অতিরিক্ত ঘুম, মানসিক চাপ, মদ্যপান, স্টেরয়েড বা অন্য নানা ধরনের ওষুধ গ্রহণের ফলেও ওজন বাড়তে পারে। বাড়তি ওজন নিয়ে  অনেক সমস্যা। অতিরিক্ত ওজনের জন্য যেকোনো ধরনের হৃদরোগ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এছাড়া রক্তনালিতে চর্বি জমে নানা সমস্যার  সৃষ্টি হয়।

অতিরিক্ত ওজন রক্তচাপেরও কারণ। ডায়াবেটিস টাইপ-২ দেখা দিতে পারে অতিরিক্ত ওজনের জন্য। তাছাড়াও মেদবহুল ব্যক্তির প্রস্টেট, জরায়ু, ও কোলন ক্যান্সারের সম্ভাবনা হালকা মানুষের চেয়ে শতকরা ৫ ভাগ বেশি।

অতিরিক্ত ওজন বৃদ্ধির সাথে সাথে হাঁটাচলা করতে সমস্যা হয়। হাঁটুর কার্টিলেজ, লিগামেন্ট, সন্ধিস্থল ক্ষয়প্রাপ্ত হয়। গেঁটে বাত, আর্থ্রাইটিস বা গাউট হওয়ার সম্ভাবনাও বেড়ে যায়। অতিরিক্ত অনেকগুন। পিত্তথলিতে পাথর হওয়ার সম্ভাবনাও বেড়ে যায় অতিরিক্ত চর্বির কারণেই।

তাই সবমিলিয়ে এ কথা বলা যায়, অতিরিক্ত কম ওজন বা বেশি ওজন- দুটোই সুস্থতার বিপরীত অবস্থা। নিজের আদর্শ ওজন নির্ণয় করুন এবং আপনার অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে ওজনকে আদর্শ অবস্থানে আনবার জন্য চেষ্টা করুন। কেবল সুন্দর থাকা মানেই ভালো থাকা নয়, সুস্থ ভাবে বেঁচে থাকাই সত্যিকারের ভালো থাকা।

আরো পড়ুন: বাত, ব্যথা, প্যারালাইসিস সহ নানাবিধ কারনে দেশের প্রায় ২ কোটি অক্ষম জনগোষ্ঠী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

8 − 2 =

x

Check Also

ভৈরবে পালিত হয় বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস (ভিডিওসহ)

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন14         14Sharesমো: শাহনূর, ভৈরব: সারাদেশের ন্যায় ভৈরবে পালিত ...

একটোপিক প্রেগনেন্সি বা জরায়ুর বাইরে গর্ভধারন-একটি জরুরী অবস্থা

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন32         32Sharesগর্ভধারনের সঠিক স্থান হচ্ছে জরায়ু। এর বাইরে ...

HPV সংক্রমণ এবং জরায়ু ক্যান্সার প্রতিরোধী টিকা

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন86         86SharesHPV বা হিউম্যান পেপিলোমা নামক এ ভাইরাসটি ...

গর্ভাবস্থার বিপদ চিহ্নগুলো জেনে রাখুন

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন69         69Sharesসব মায়েরাই চান সুস্থ স্বাভাবিক অবস্থায় সন্তান ...

নারী স্বাস্থ কথন’ বিষয়ক এক সেমিনার

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন3         3Sharesজুয়েল হিমু, টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলার নলশোধা ...

সারা দেশের চিকিৎসকদের সতর্ক করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন55         55Shares সারা দেশের চিকিৎসকদের সতর্ক করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে ...