বন্ধ্যাত্ব এবং এর কারণ সমূহ

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
  • 501
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
    501
    Shares

দুই বছর বা এর অধিক সময় কোন ধরনের জন্ম নিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি ছাড়া গর্ভধারণে ব্যর্থ হলে তাকে ডাক্তারি ভাষায় বন্ধ্যাত্ব হিসেবে সংজ্ঞায়িত করা হয়। সাধারণত প্রতি ১০০ জন দম্পতির মধ্যে ৮৪ জন প্রথম বছরে এবং ৯২ জন দ্বিতীয় বছরের মধ্যে গর্ভধারন করতে সমর্থ হন। তাই বলা যায় প্রতি ১০০ জন দম্পতির মধ্যে ৮ জন বন্ধ্যাত্বের শিকার হন।

কখন ডাক্তারের কাছে যাবেন? এক বছর বা এর অধিক সময় কোন ধরনের জন্ম নিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি ছাড়া গর্ভধারণে ব্যার্থ হলে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে। তবে বয়স ৩০এর বেশি থাকলে ৬ মাস চেষ্টার পরই ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া উচিত।

বন্ধ্যাত্বের কারন সমুহঃ  বন্ধ্যাত্বের বহুবিধ কারন থাকে,স্বামী-স্ত্রী যেকোন একজন বা উভয়ের ক্ষেত্রে সমস্যা থাকতে পারে। গর্ভধারনের জন্য দরকার একটি সুস্থ্ ওভাম (ডিম), সবল বীর্য ও নরমাল ইউটেরাস বা জরায়ু। এর যেকোন জায়গায় সমস্যা হলে গর্ভধারনেব্যর্থতা দেখা দিতে পারে। প্রাথমিক ভাবে বন্ধাত্ব্যের কারন কে তিন ভাগে ভাগ করা যেতে পারে। এগুলো হচ্ছে এনুভলেশন(ডিম্বাশয় থেকে ওভাম বা ডিম নিঃসরণ না হওয়া ), জরায়ু বা ডিম্বনালীর সমস্যা এবং পুরুষ সঙ্গীর সমস্যা।
ওভুলেসন বা ডিম্বস্ফুটন না হওয়ার কিছু কারন সমুহঃ
• পলিসিস্টিক ওভারিয়ান সিনড্রোম
• হরমনের অস্বাভাবিক মাত্রায় নিঃসরণঃ কিছু কিছু হরমোন যেমন প্রলেক্টিন,থাইরয়েড হরমোন অথবা পিটুইটারি FSH, LH হরমোনেরঅস্বাভাবিক মাত্রায় নিঃসরণওভুলেশন ব্যাহত করে।

• ওজন স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক বেশী বা কম থাকা।
• প্রিমেচিউর ওভারিয়ান ফেইলিউর
• অতিরিক্ত মানসিক চাপ।
• অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস, ক্যান্সার কিংবা কিডনি রোগেও অভুলেশন ব্যাহত হতে পারে।
• কেমোথেরাপি বা রেডিওথেরাপি সাময়িক বা পরোপুরি ভাবে ওভারিকে অকার্যকর করে দিতে পারে।
জরায়ু বা ডিম্বনালীর সমস্যাঃ
• জারায়ুর টিউমার যেমন এডিনোমায়োসিস,ফাইব্রয়েড বা পলিপ।
• পেলভিক ইনফ্লামেটরি ডিজিজ (পি আই ডি) অথবা যেকোনো ইনফেকশনের কারনে ডিম্বনালী বন্ধ হয়ে ওভাম এবং শুক্রানু নিষিক্তকরনের পথ বন্ধ করে দিতে পারে।
• এন্ডোমেত্রিওসিস বন্ধ্যাত্বের একটি পরিচিত কারন। এ রোগের লক্ষন মাসিকের সময় অতিরিক্ত রক্তক্ষরন,পেটে ব্যাথা ইত্যাদি।

• ইনফেকশন বা এন্ডোমেত্রিওসিস জরায়ু এবং এর আশে পাশের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের স্বাভাবিক এনাটমি নষ্ট করে বন্ধাত্ব্যের কারন ঘটায়।
মেল(পুরুষ) ফ্যাক্টরঃ ৩০% ক্ষেত্রে পুরুষ সঙ্গীর সমস্যার কারনে বন্ধ্যাত্ব্ হতে পারে।
• শুক্রানু বা বীর্য যথেস্ট গতিশীল না হলে বা অস্বাভাবিক গঠনগত কারনে বন্ধ্যাত্ব হতে পারে।
• কোন কারনে শুক্রানু তৈরী ব্যাহত হলে,যেমন জীনগত ত্রুটি, ভেরিকোসেলি,টেস্টিসের টিউমার বা ইনফেকশন অথবা কোন অউষুধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া জনিত কারনে নরমাল শুক্রানুতৈরীবাধাপ্রাপ্ত হতে পারে।
পুরুষ এবং মহিলা উভয়ের ক্ষেত্রেই গর্ভধারনের হার বয়স বাড়ার সাথেকমে যায়। ৩৫ বছরের পর থেকে মেয়েদের ওভুলেশনের হার কমতে থাকে, একইসাথে শুক্রানুর কার্যকারীতাওবয়সের সাথে সাথে কমে। তাই এই চিকিৎসায় বিলম্ব হলে সাফল্যের হারও কমে যায়।

ডাঃ নুসরাত জাহান, সহযোগী আধ্যাপক (অবস-গাইনি),
চেম্বার: ডিপিআরসি হসপিটাল এন্ড ডায়াগনস্টিক ল্যাব,
(১২/১, রিং-রোড, শ্যামলী, ঢাকা-১২০৭)
সিরিয়ালের জন্য ফোনঃ-  +8801997702001, +8801997702002,
09666774411,  029101369, 0258154875

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

20 − two =

x

Check Also

ভৈরবে পালিত হয় বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস (ভিডিওসহ)

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন14         14Sharesমো: শাহনূর, ভৈরব: সারাদেশের ন্যায় ভৈরবে পালিত ...

একটোপিক প্রেগনেন্সি বা জরায়ুর বাইরে গর্ভধারন-একটি জরুরী অবস্থা

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন32         32Sharesগর্ভধারনের সঠিক স্থান হচ্ছে জরায়ু। এর বাইরে ...

HPV সংক্রমণ এবং জরায়ু ক্যান্সার প্রতিরোধী টিকা

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন86         86SharesHPV বা হিউম্যান পেপিলোমা নামক এ ভাইরাসটি ...

গর্ভাবস্থার বিপদ চিহ্নগুলো জেনে রাখুন

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন69         69Sharesসব মায়েরাই চান সুস্থ স্বাভাবিক অবস্থায় সন্তান ...

নারী স্বাস্থ কথন’ বিষয়ক এক সেমিনার

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন3         3Sharesজুয়েল হিমু, টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলার নলশোধা ...

সারা দেশের চিকিৎসকদের সতর্ক করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন55         55Shares সারা দেশের চিকিৎসকদের সতর্ক করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে ...