চিনি কি আপনার হৃৎপিন্ডের ক্ষতি করতে পারে ?

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
  • 89
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
    89
    Shares

চিনি কি আপনার হৃৎপিন্ডের ক্ষতি করতে পারে ?

সম্প্রতি ওয়াশিংটন পোস্ট ম্যাগাজিনের শিরোনামে বলা হয়েছে: কোলেস্টেরলের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র সরকার দীর্ঘদিন ধরে যে সতর্কবাণী উচ্চারণ করে আসছিল, সেটা তুলে নেওয়ার জন্য সরকার এখন প্রস্তত।

এর আগে ডিম নিয়ে হৈচৈ অনেকটা সুনামীর পর্যায়ে চলে গিয়েছিল। এর একটা কারণ এই হতে পারে যে, জনগণ ভুলক্রমে ধারণা করেছিল যে মাংস, মাখন বা অন্য যেসব খাবার কোলেস্টরল (Cholesterol) বাড়ায় সেগুলোর ব্যাপারে সরকার সতর্কবাণী প্রত্যাহার করতে যাচ্ছে এবং কোলেস্টেরল রয়েছে যে ডিমে সেগুলোর ব্যাপারে নয়।

প্রকৃতপক্ষে ডিম এত বেশি মনোযোগ পেয়েছিল যে, মিডিয়া একটি বড় কাহিনীতে হারিয়ে যায়। খবরের শিরোনামে উল্লেখ করা হয়েছিল যে, বাড়তি চিনি স্থূলতা (Obesity) টাইপ-২ ডায়বেটিস ও দন্তক্ষয় (Dental caries) এর ঝুঁকি বাড়ায়। শুধু তা-ই নয়, এটি হৃদরোগ এবং স্ট্রোকেরও ঝুঁকি বাড়ায়।

ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক কিম্বার স্ট্যানহোপ (Kimber Stanhope) বলেন, গবেষণায় দেখা গেছে বাড়তি চিনি খেলে হৃদসংবহন রোগে (Cardiovascular Disease) মৃত্যুর ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়।

গত বছর গবেষকরা এক প্রতিবেদনে বলেছেন যে, যারা বাড়তি চিনি খান, হৃদসংবহন রোগে (Cardiovascular Disease) তাদের মৃত্যুঝুঁকি স্বাভাবিকের তুলনায় দ্বিগুণ। এসব মৃত্যু হৃদআক্রমণে ও স্ট্রোকজনিত কারণে ঘটে থাকে।

গবেষক কিম্বার স্ট্যানহোপ বলেন, আমরা সরাসরি সাক্ষ্য-প্রমাণ পেয়েছি যে বাড়তি চিনি খেলে হৃদসংবহন রোগের ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়।

গবেষকরা ১৮ থেকে ৪০ বছর বয়সীদেরকে বিভিন্ন ধরনের পানীয় বা বেভারেজ খেতে দেন। এগুলোতে ছিল উঁচু মাত্রার কর্ণ সিরাপ (Corn syrup)। দৈনন্দিন ক্যালরির ০,১০, ১৭.৫ অথবা ২৫ ভাগ ছিল এসব সিরাপে।

ফলাফল : যত বেশি মাত্রা তত বেশি মন্দ কোলেস্টেরল এবং খাদ্যগ্রহণ পরবর্তী ট্রাইগ্লিসেরাইডস।

গবেষক স্ট্যানহোপ বলেন, আমরা শতকরা ১০ ভাগ দেখতে পাবো এমন প্রত্যাশা ছিল না কিন্ত তা-ই দেখলাম। এমনকি আধা কৌটা রেগুলার সোডার সমপরিমাণ চিনি ব্যবহারেও হৃদসংবহন রোগ (Cardiovascular Disease) এর ঝুঁকি বেড়ে যায়।

ইতপূর্বে কর্ন রিফাইনার্স এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে অনুরূপ একটি জরিপ হয়েছিল। কিন্তু এ ধরনের বেভারেজ খেয়ে কারো এলডিএল (LDL-Low Density Lipoprotein) কিংবা ট্রাইগ্লিসেরাইডস (Triglyceride) এর মাত্রায় কোন বাড়বৃদ্ধি দেখা যায় নি। গবেষক স্ট্যানহোপ বলেন, পূর্বেকার ঐ জরিপে মৌলিক ত্রুটি থাকায় গুরুত্বপূর্ণ পার্থক্যগুলো ধরা সম্ভব হয় নি।

চিনি কীভাবে এলডিএল (LDL) ও  ট্রাইগ্লিসেরাইডস বৃদ্ধি করে? ফ্র্যাকটোজ, টেবিল সুগার (Fructose), উঁচু ফ্র্যাকটোজযুক্ত কর্ন সিরাপ ইত্যাদি এ বিপত্তির সৃষ্টি করে বলে ধারণা করা হয়।

গবেষক স্ট্যানহোপ বলেন , ফ্র্যাকটোজ (Fructose) যকৃতে (Liver) বিপাক হয়ে যায়। ফলে দেহের অন্য অংশে ছাড়ায়  না। লিভার ওভারলোড হয়ে গেলে ফ্র্যাকটোজের একটা অংশকে লিভার চর্বিতে রূপান্তরিত করে। এি চর্বি রক্তনালীতে গিয়ে ট্রাইগ্লিসেরাইডসে রূপ নেয়। ফলে এলডিএল (LDL) কোলেস্টেরল বৃদ্ধি পায় আরো কিছু উপাত্তের জন্য অপেক্ষমাণ গবেষক স্ট্যানহোপ বলেন, আমাদের জরিপে দেখা গেছে মোট ক্যালরির মাত্র ১০ ভাগ যদি চিনি থেকে আসে, তা হলেও মানুষ এর প্রতি সংবেদনশীল হয়ে পড়ে। আপনি যত বেশি চিনি খাবেন, তত বেশি ঝুঁকিতে পড়বেন।

শেষ কথা : মহিলা হলে সর্বোচ্চ ৬-চামচ(১০০ ক্যালরি) এবং পুরুষ হলে ৯ চা-চামচ (১৫০ ক্যালরি) এর মধ্যে চিনি খাওয়া সীমিত রাখুন। আমেরিকান হার্ট এসোসিয়েশনের পরামর্শ এটাই।

আরও পড়ুনঃ হার্টের বাইপাস অপারেশন যা জানা প্রয়োজন।

গণ সচেতনতায় ডিপিআরসি হসপিটাল লিমিটেড

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

9 − 2 =