স্ট্রোক সম্পর্কে জানি

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
  • 120
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
    120
    Shares

স্ট্রোক সম্পর্কে জানি

স্ট্রোকের অপর নাম Brain Attack অথবা CEREBRO VASCULAR ACCIDENT (CVA) ব্রেনের কোথাও রক্ত চলাচল যখন সম্পূণভাবে বন্ধ হয়ে যায় বা বাধাগ্রস্থ হয়, যার ফলে ব্রেনের ওই অংশ অচল হয়ে যায় বা মারা যায়। এটাই হলো স্ট্রোক।

৬৫ বছর পর মৃত্যুর প্রধান কারনের মধ্যে স্ট্রোকের স্থান তৃতীয়। যদি মৃত্যু না-ও হয় তবে স্ট্রোকে সাংঘাতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ বা পঙ্গ করে (Stroke)।

স্ট্রোক সম্পর্কে জানতে হলে আমাদের ব্রেন সম্পর্কে একটু জানা দরকার। ব্রেন মাথার খুলির মধ্যে থাকে। একান Information process করে ও Information Issue করে।

ব্রেনের চারটা ভাগঃ

সেরিব্রাম (Cerebrum)

ডায়েন সেফআলন (Deincephalon)

ব্রেন স্টেম (Brain Stem)

সেরিবেলাম (Cerebellum)

⇒ সেরিব্রাম(Cerebrum): এটা ব্রেনের ওপরের অংশ।

কাজ:

ক) হাত, পা, শরীর নড়াচড়া করা।

খ) চোখ, কান, নাক, স্বাদ (Taste Buds) ও স্পর্শ (Sensory Receptors Of SKIN) থেকে যে Information  আসে সেটাকে প্রসেস Process করে।

গ) কথা বলা, মনে রাখা , চিন্তা করা ও ইমোশন (Emotion) এখান থেকে হয়। ডান দিকের ব্রেন শরীরেরবাম দিকের কাজ করে এবং বাম দিকের ব্রেন শরীরের ডান দিকের কারে। সুতরাং সেরিব্রাম (Cerebrum) এ ট্রোসক হলে, যে কাজগুলো করতে পারে না।

⇒ ডায়েন সেফআলন (Diencephalon): এর ২টা অংশ।

ক) থালামাস (Thalamus) স্পাইনাল কর্ড (Spinal Cord) হতে যে Information গুলো আসে সেগুলোকে শর্টিং Sorting করে সেরিব্রামে এ পাঠায়।

খ) হাইপোথেলামাস(Hypothalamus)

শরীরের তাপমাত্রা ঠিক রাখে

শরীরের তরল পদার্থ ঠিক রাখে, ক্ষুধা, ঘুম

কিছু কিছু ইমোশন(Emotion) এবং পিটুইটারি গ্ল্যান্ড (Pituitary Gland) কে নিয়ন্ত্রণ করা। সুতরাং ব্রেনের এই অংশে স্ট্রোক হলে, এ কাজগুলো বাধাগ্রস্থ বা বন্ধ হয়ে যায়।

⇒ ব্রেন স্টেম কর্ড (Brain STEM):

এটা স্পাইনাল কর্ড (Spinal Cord) কে ব্রেনেরর সাথে যুক্ত করে।

এটার তিনটি অংশ।

মিড ব্রেন (Mid Brain)

পন্স (PONS)

মিডুলা (Medulla)

হার্টবিট (Heart Beat)

শ্বাস প্রশ্বাস (Respiration)

ব্লাডপ্রেসার (Blood Pressure) নিয়ন্ত্রণ করে।

সুতরাং এই অংশে স্ট্রোক হলে এ কাজগুলো বন্ধ হয়ে যায়।

⇒ সেরিবেলাম (Cerebellum)

ব্রেনের এই অংশ কাজ বা কমান্ড (Command) গুলো সুন্দরভাবে বা (Smoothly) করার জন্য সহযোগিতা (Coordinate) করে। আমাদের ব্যালেন্স (Balance) ঠিক রাখে। সুতরাং এই অংশে স্ট্রোক হলে এ কাজগুলো  হবে না। স্ট্রোক হঠাৎ করেই হয়। একদম সুস্থ লোকের হঠাৎ করে ব্রেনের কোনো অংশ রক্ত চলাচল বন্ধ হয়ে গেলে তার স্ট্রোক হয়।

স্ট্রোকের উপসর্গ (Sign & Symptom)

০১.         স্বাভাবিক ব্যবহারের পরিবর্তন

০২.         মুখের এক পাশ বাঁকা যাওয়া

০৩.        কথা জড়িয়ে যাওয়া বা কথা বলতে না পারা, মুখ দিয়ে লালা পড়া

০৪.         হঠাৎ করে প্রচন্ড মাথাব্যাথা

০৫.         অজ্ঞা হয়ে যাওয়া

০৬.        ঘুম থেকে জাগানোই যায় না।

০৭.         হাত-পা মুখের বা শরীরের এক পাশ ঝিনঝিন করা বা অবশ হয়ে যাওয়া বা প্যারালাইসিস  হওয়া।

০৮.        ব্লাডপ্রেসার (Blood Pressure) বা পালস (Pulse) পরিবর্তন।

স্ট্রোকের কারণ

রক্ত জমাট বা রক্তক্ষরণের জন্য হয়।

ক) প্রধান কারণ রক্ত জমাট বা (Blood Clot) যেটা রক্তনালীতে যেয়ে ব্লক (Block) করে রক্ত চলাচলের।

কাদের হয়:

যাদের ব্লাডপ্রেসার (Blood Pressure) নিয়ন্ত্রণ এ নেই।

ডায়াবেটিস (Diabetes)

যারা ধূমপান করে তাদের রক্তনালী ধূমপানের ফলে শক্ত হয়ে যায়।(Atherosclerosis)

খ) ব্রেনে রক্তক্ষরণ (Cerebral Haemorrage) , অর্থ্যা রক্তনালী যখন ফেটে যায়, রক্তগুলো ওই নালীর চার দিকে ছড়িয়ে পড়ে। যার ফলে ব্রেনের ওপর চাপ দেয় ও ব্রেনের ওই স্থানেই কাযক্ষমতা নষ্ট হয়ে যায়।

কাদের হয়?

অনেক দিন ধরে যাদের ব্লাডপ্রেসার

যাদের রক্তনালী ধীরে ধীরে শক্ত হয়ে গেছে।(Artheriosclerosis)

যাদের রক্তনালী একটু অন্যরকম।

স্ট্রোকের ফলে কী হয় (Effect of Stroke)

নির্ভর করে ব্রেনের কোন অংশে স্ট্রোক হয়েছে এবং ব্রেন কতটুকু নষ্ট হয়েছে। যেমন- ব্রেন স্ট্রেম এ হলে তখনই মৃত্য, কারণ এটা আমাদের শ্বাস প্রশ্বাস ও ব্লাডপ্রেসার নিয়ন্ত্রণ করে। ব্রেনের ওপরে সেরিব্রাম এর কোনো অংশে হলে পক্ষাঘাত হয়। যেমন- শরীরের এক পাশে প্যারাইসিস  বা কথা বন্ধ হয়ে যাওয়া।

এই প্যারালাইসিস  নির্ভর করে ব্রেনের কতটুকু নষ্ট হয়েছে।

অল্প নষ্ট হলে ওই পাশটা একটু দুর্বল  বা হালকা কাঁপে।

সাংঘাতিকভাবে নষ্ট হলে পাশটা একেবারেই নড়াতে পারে না বা অনুভব করতে পারে না।

আর একটা Common Disability হলো অর্থ্যা কথা না বলা বা না বোঝার সমস্যা।

এ ধরনের রোগীকে বারবার এ পাশ বা অন্য পাশ করে শোয়াতে হয় (Frequent Re positioning), যাতে গরমে পুড়ে না যায়, কারণ সে গরম, ঠান্ডা , ব্যথা কিছুই অনুভব করতে পারে না।

Aphasia দুই পদের। যেমন-

Expressive Aphasia অর্থ্যা কথা বলার অঙ্গে স্ট্রোক হওয়া। এরা কথা বলতে পারে না। এদের গিলতে (Swallowing) সমস্যা হয়। শ্বাসনালীতে খাবার যাওয়ার আশঙ্কা থাকে, গিলতে না পারার জন্য মুখ দিয়ে লালা পড়ে। Respective Aphasia- কথা বোঝার অঙ্গে স্ট্রোক হওয়া। অর্থ্যাৎ তারা কথা বলতে পারে ঠিকই কিন্তু কি বলছে তা জানে না। যেমন সে হয়তো না, বলতে চাইছে কিন্তু সে হ্যা বলছে।

স্ট্রোকের চিকিৎসা:

আগে স্ট্রোক হলে তার Medical condition যেমন: Blood Pressure, Diabetes ইত্যাদি Stabilize করা  এবং পরবর্তী সময়ে ফিজিওথেরাপি দেয়া। কিন্তু এখন উন্নত চিকিৎসা এসেছে, ব্রেন ড্যামেজ হওয়ার আগেই জমাট রক্ত বা Blood কে খুলে দেয়া। এ জন্য স্ট্রোক হওয়ার পরপরই দ্রুত এই ওষুধগুলো দিয়ে জমাট রক্ত বা Blood clot সরিয়ে ফেলা।

বড় ধরনের স্ট্রোক হলে রোগী ICUE- তে ভর্তি করা হয়। তাকে Respiratory Support, Oxygen, Heart rate ও ব্লাডপ্রেসারের ওষুধ দেয়া হয়।

রোগীকে Continuous Monitoring  করা হয়। যখনই তার Medical Condition Stabilize  হয় তাকে বিভিন্ন Therapy অর্থ্যাৎ Physio Therapy, Occupation All Therapy, Speech Therapy দেয়া হয় যাদের গিলতে অসুবিধা।

আরও পড়ুনঃ চিনি কি আপনার হৃৎপিন্ডের ক্ষতি করতে পারে ?

গণ সচেতনতায় ডিপিআরসি হসপিটাল লিমিটেড

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

3 + 13 =

x

Check Also

পুরুষের বন্ধ্যাত্ব রোগে চিকিৎসা

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন153         153Sharesযেসব পুরুষ বন্ধ্যত্বের সমস্যায় ভোগেন তাদের অন্তত ...

শিশু ওয়ার্ড না থাকায় আক্রান্ত শিশুদের মহিলা ওয়ার্ডে রেখে চলছে চিকিৎসা

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন60         60Shares জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহঃ ঝিনাইদহ জেলার ...

তত্বাবধায়কের প্রচেষ্ঠায় পাল্টে গেছে নওগাঁ সদর হাসপাতালের চিত্র !

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন49         49Sharesজি,এম মিঠন, নওগাঁ: নওগাঁ সদর হাসপাতালে লেগেছে ...

কাঁচা কলার যত গুণ

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন21         21Sharesডা. শিব্বির আহমেদ: পেটের অসুখে উপকার পাওয়া ...

বিশ্ব এইডস দিবস উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন          আসাদুল ইসলাম সবুজ, লালমনিরহাট: ১লা ডিসেম্বর বিশ্ব ...

জিয়া পরিবারের দুঃসময়ের বন্ধু নোয়াখালী-৩ আসনে বিএনপির মনোনয়ন পেলেন ডা: দোলন

পোস্ট টি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন13         13Sharesমোহাম্মদ আলাউদ্দিন, নোয়াখালী: বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ...